শুকনো পাতার মরমর ধ্বনি.....

জীবন থেকে ঝরে পড়তে চায় না কেউ! বেঁচে থাকার আশায় প্রতিনিয়তই লড়াই চলছে এই ধরায়। বেঁচে থাকতে চায় বহুদিন, কিন্তু.........

রাস্তায় হাটছি, হঠাৎ পায়ের নিচে মরমর শব্দে জেগে উঠল শুপ্ত হৃদয়, দেখি শুকনো পাতাটি ভেঙ্গে চুরমার হয়ে গেলো নিমিষেই। এই ছিল বুঝি তার শেষ পরিনাম, কিছুক্ষণ আগেও সে স্বপ্ন দেখেছে গাছের কচি পাতার দিকে তাকিয়ে, শুধু বেদনার সুরে বলেছিল- আমি যদি আবার কচি পাতার মুকুল হতাম অথবা গাঢ় সবুজ পাতা বা সেই প্রথম বুঝে উঠা কচি পত্রপল্লভে ভরে উঠা দিনগুলির একটিতে...
 
আবার চেয়েছিল গাড় সবুজ রং ধারণ করে ভরা যৌবন ফিরে পেতে, এভাবে বেদনা ভরা দৃষ্টিতে তাকিয়ে থাকা, কিন্তু তা আর হলো না। সব যেন চুরমার হয়ে গেল এক মুহুর্তে। পাতাটির আত্মচিৎকার কেউ শুনতে পায় না, কত অজানা পথিক হেটে গেলো কেউ তাকে লক্ষ্য করল না! তার এই অপারগতার কথা, শান্তনা দিলনা কেউ বরং তাকে মাটির সাথে পিষিয়ে দিয়ে চলে গেল......
 
এই পাতাটি একদিন কচি পাতা হয়ে নিজের অজান্তে জীবনের অধ্যায় শুরু করেছিল। কত পাক-পাখালি তার ডালে এসে বসেছিল, তাকে কত গান শুনিয়ে ছিল, তার সাথে বন্ধুত্ব করতে চেয়েছিল, যুগ যুগ ধরে কতো শীত, বসন্ত পার করেছে, আজ তার কেউ নেই, হারিয়ে গেছে সেই সব দিন যা আর কোন দিন ফিরে পাবে না। এখন শুধু কালের স্রোতে হারিয়ে যাওয়ার পালা...।

জীবন অনেক দামী, তার প্রতিটি সময় অত্যন্ত মূল্যবান, কালের ধারাপাতে মানুষের জীবন চলছে, ভাবছে না কেউ তার পরিণতির কথা, ভবিষ্যত আশা আকাঙখা তাড়িয়ে বেড়াচ্ছে সারাক্ষণ, কিন্তু একদিন এই জীবন অধ্যায়ের পরিসমাপ্তি ঘটবে তা জেনেও অবহেলায় যাচ্ছে জীবনের অধিকাংশ সময়।

যৌবন ও সময় মানুষের জীবনে একবারই আসে, তা আর কখনো ফিরে আসে না। জীবনের প্রতিটি মূহুর্ত অনেক দামী, তাই সময়ের সদ্যবহার করা উচিত, কারণ হারিয়ে যাওয়া যৌবন, সময়, শক্তি, সামর্থ দামী মনে হয় হারিয়ে গেলে অথবা বার্ধ্যক্যে পৌঁছলে। কিন্তু তখন যে সময় শেষ প্রান্তে, কেউ কেউ চায় সেই হারিয়ে যাওয়া দিনগুলো ফিরে পেতে, আবার সম্পদে পরিপূর্ণ মানুষ আবহেলায় হারিয়ে ফেলে মূল্যবান সম্পদ, নিঃস্ব হলেই তখন সম্পদের মায়া বুঝে এভাবে প্রতিটি বিষয়ই চলে যাওয়ার পর তার গুরুত্ব বুঝে।

শুকনো পাতা যেমন আর ঘন সবুজ পাতায় পরিনত হবে না, এটি যেমন চির সত্য ঠিক তেমনিই মানব জীবনের হারিয়ে যাওয়া যৌবন ও সময়  আর কখনো ফিরে আসবে না। কল্পনার মাঝে সে আশাগুলো থেকে যায়, অতৃপ্ত বেদনায় শান্তনা দেয় তার বাসনাকে, এভাবেই বয়ে চলে সময়..........

মানুষ এক সীমাহীন গন্তব্যের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে, সেই গন্তব্যের জন্য কিছু পাথেহ সঞ্চয় করা প্রয়োজন। দুনিয়ার জীবন এক সময় শেষ হয়ে আখেরাতের জীবনে প্রত্যাবর্তন করতে হবে। কখনো কি ভেবেছেন আপনার জীবনের কত শত দিন হারিয়ে গেছে জীবন থেকে! আর সামনে কত দিন পাবেন তাও জানা নেই। কিন্তু পরকালের জন্য কি সঞ্চয় করলেন, জীবনের মহামূল্যবান দিনগুলোকে অবহেলায় কাটিয়ে দিচ্ছি অথচ এই দিনগুলোর কাজের বিনিময়ে মানুষ পাবে চিরস্থায়ী জান্নাত । যা কোন দিন শেষ হবে না। এই মহামূল্যবান সম্পদের জন্য আমরা কতটুকু সচেতন, ভাবনার বিষয়..........
 
জীবনের প্রতিটি মুহুর্ত যেন হয়, সুচিন্তিত, পরিকল্পিত, যুগোপযোগী, জীবনের যোগ-বিয়োগে ভুল করলে তা আর কখনো সমাধান করা সম্ভব নয়। তখন শুধু স্মৃতির পাতার বেদনাকে সম্ভল করে পথ চলতে হয় জীবনের শেষ প্রতিক্ষায় ..........
 
আসি আজ থেকে প্রতিটি সময়কে কাজে লাগাই নিজের জন্য, মানবতার জন্য, এ জীবনকে সার্থক করে তুলি, জীবন সীমান্তে এসে যেন হতাশায় ভুগতে না হয়, আসুন আমরা সকলে আজ থেকে জীবনকে সাজাই আল্লাহর রঙে।

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 3 (টি রেটিং)

খুবই সুন্দর ভাষায় লিখেছেন চিরসত্য কথা গুলো শুধু ভালো লেগেছে বলবো না আসলেই আমাদের উচিৎ চির স্থায়ী জীবন  নিয়ে চিন্তা করার এবং সে মতো কাজ করার মহান আল্লাহ আমাদের তোফিক দিন তার সামনে সম্মানের সাথে দাড়াতে......................আমিন।
মহান আল্লাহ লেখকের লেখার হাতকে আরো সুপ্রসারিত করুন.....................................।

-

▬▬▬▬▬▬▬▬ஜ۩۞۩ஜ▬▬▬▬▬▬▬▬
                         স্বপ্নের বাঁধন                      
▬▬▬▬▬▬▬▬ஜ۩۞۩ஜ▬▬▬▬▬▬▬▬

jajakallahu khyer

Rate This

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 3 (টি রেটিং)